সাদা স্রাব কি, কেন ও কিভাবে নিরাময় করা সম্ভব

পুরুষদের তুলনায় মা-বোনেরা একটু বেশী শারীরিক সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু বেশিরভাগ মা-বোনেরা তাদের সমস্যার কথা গুলো কাউকে বলতে চান না। এ ধরনের সমস্যার মধ্যে একটি হচ্ছে সাদাস্রাব হওয়া। যে সব মা-বোনেরা সাদা স্রাবের সমস্যায় ভুগছেন তাদের নিকট আমার একটি অনুরোধ সমস্যাটি লুকিয়ে রাখবেন না। লুকানো এই সমস্যাটি আপনার জন্য ডেকে আনতে পারে ভয়াবহ বিপদ।

সাদা স্রাব আসলে কী?

লিউকোরিয়া বা সাদা স্রাব হচ্ছে মহিলাদের একটি বিশেষ সমস্যা। অধিকাংশ স্রাব জীবন শৈলী ও শারীর বৃত্তীয় সংক্রান্ত যার কোন চিকিৎসা প্রয়োজন হয় না। তবে প্রচুর পরিমাণে, রক্তে দাগ, দুর্গন্ধ যুক্ত, স্বাভাবিক রংয়ের না হলে গুরুত্বের সাথে দেখতে হবে।

সাধারণত, স্বাভাবিক স্রাব পাতলা এবং সামান্য চটচটে হয়। এটা অনেকটা সর্দির মত। সাধারণত যোনি সাদা স্রাবের পরিমাণ ডিম্বস্ফূটন এবং যখন মানসিক চাপের বৃদ্ধি, মাসিক চক্রে তারতম্য হয় ।

স্বাভাবিক শারীরবৃত্তীয়, বয়সন্ধিকালে রক্ত চলাচল বেড়ে যায় ফলে নিঃসরণ-ও বেশি হয়, যৌন মিলনকালে, যৌন আবেগে, গর্ভাবস্থায়, শরীরের রাসায়নিক সমতা বজায় রাখতে এবং যোনির কোষগুলোকে সচল রাখতে ইস্ট্রজেন (oestrogen ) হরমোনের প্রভাবে সাদা স্রাবের নিঃসরণ হতে পারে।

এছাড়া মেয়ে শিশুর জন্মের প্রথম ৭-১০ দিনের মধ্যেও সাদা স্রাবে চাপ দিতে পারে। মায়ের শরীরে যদি অত্যাধিক হরমোন থাকে তবেও সাদাস্রাব হতে পারে।, সন্তান প্রসবের প্রথম কয়েকদিন-ও সাদা স্রাব বেশি হতে পারে, হস্তমৈথুন বা মাস্টারবেশন, অভুলেশন ( ডিম্বাণু নিঃসরণ কালে ) জন্ম বিরতিকরণ পিল ব্যবহার করলে।

সাদাস্রাব কেন হয়?

শরীরের সঙ্গে মনের একটি ভালো যোগাযোগ রয়েছে। মনের ভালো মন্দের প্রভাব অবশ্যই শরীরের ওপর পরে।তাই মানসিক চাপ হতে পারে সাদা স্রাবের অন্যতম কারণ।

১। পর্যাপ্ত বিশ্রাম ও পুষ্টির অভাব

পর্যাপ্ত বিশ্রাম ও পুষ্টির অভাব হতে পারে সাদা স্রাবের সমস্যা।তাই বিশ্রাম নেওয়ার পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে ডিম, দুধ, মাছ, মাংস , সবুজ সবজি ও ফলমূল খেতে হবে।

২। কৃমির সংক্রমণ

নারীদের শরীরে পুষ্টিহীনতার জন্য কৃমির কৃমির সংক্রমণ হতে পারে।আর কৃমির সংক্রমণ হলে আপনি যা-ই খান, তার একটি বড় অংশ কৃমির পেটে চলে যাবে। কৃমির সমস্যা থেকে হতে পারে সাদাস্রাব।

৩। অপরিচ্ছন্নতা কাপড়

অপরিচ্ছন্নতা কাপড় সঠিকভাবে না শুকিয়ে স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে রেখে ব্যবহার করা মোটেই ঠিক নয়।এত করে হতে পারে সাদাস্রাবের সমস্যা।পরনের কাপড় রোদে শুকিয়ে ব্যবহার করা ভালো।

সাদা স্রাব নিরাময়ে কয়েকটি ঘরোয়া চিকিৎসাঃ

১। মেথি বীজ

সিদ্ধ মেথি বীজ খেলে সাদা স্রাবের সমস্যা সমাধান হতে পারে। আধা লিটার পানিতে কিছুটা মেথি ফুটিয়ে ঠাণ্ডা হয়ে এলে পানি পান করুন।

২। ধনিয়া

কিছু ধনিয়া সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন, সকালে পানিটা ছেকে নিয়ে খালি পেটে রাখুন। সাদা স্রাবের চিকিৎসার জন্য এটি অন্যতম সহজ এবং নিরাপদ ঘরোয়া উপায়।

৩। আমলকি

ভিটামিন সি এবং অন্যান্য অনেক পুষ্টি সমৃদ্ধ আমলকি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং আমাদের সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এটি যেকোনোভাবেই খাওয়া যায়।

৪। তুলসী পাতা

বিভিন্ন রোগ সারাতে যুগে যুগে ব্যবহৃত হয়ে আসছে তুলসি। কিছু তুলসি পাতা পানিতে সিদ্ধ করে নিতে পারেন। এতে কিছুটা মধুও যোগ করতে পারেন। সমস্যাটি দূর করতে প্রতিদিন দু’বার এই পানীয় পান করুন। দুধের সঙ্গেও তুলসি খেতে পারেন।

৫। ভাতের মাড়

সাদা স্রাবের সমস্যা নির্মূল করতে নিয়মিত ভাতের মাড় পান করতে পারেন। ক্রমাগত সাদা স্রাবের সমস্যায় ভুগলে আপনার জন্য ভাতের মাড় একটি অনন্য প্রতিকার।

৬। পেয়ারা পাতা

সাদা স্রাবের পাশাপাশি চুলকানির মতো সমস্যা দেখা দিলে কিছু পেয়ারা পাতা পানিতে সিদ্ধ করে নিন। এটি ঠান্ডা হওয়ার পরে পান করতে পারেন। দিনে দু’বার পান করুন।

পরিশেষে বলব, সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করুন, সদা সর্বদা পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন, চিন্তা মুক্ত থাকুন এবং পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করুন তাহলে সাদাস্রাব থেকে কিছুটা হলেও বেচে থাকতে পারবেন। আর যদি দেখেন আপনার সাদাস্রাব একটি দৃর্ঘ্যমেয়দি একটি অসুখে পরিনত হয়েছে তাহলে দেরী না করে একজন অভিজ্ঞ ডাক্তারের স্মরনাপন্ন হন।  সকলকে ধন্যবাদ।।

০ Comments

Leave a reply

কপিরাইট © 2020-2021 প্রতিচ্ছবি কর্তৃক সর্বস্বত্ত সংরক্ষিত।

যোগাযোগ করুন

আমরা এখনই কাছাকাছি নেই। তবে আপনি আমাদের একটি ইমেল প্রেরণ করতে পারেন এবং আমরা আপনার কাছে আবার আসব।

Sending

Log in with your credentials

or    

Forgot your details?

Create Account